Friday, 15 March 2013

সময় এসেছে টুইটারে #Paltansquare নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ার



বাংলাদেশে আসন্ন একটি বিপ্লবের লক্ষ্যে একঝাঁক মেধাবী তরুণ মিশরের তাহরীর স্কয়ারের মত বাংলাদেশের পল্টন মোড়কে বেছে নিয়েছে ...যেখান থেকে বাংলাদেশে একটু কার্যকর বিপ্লবের সূচনা হবে ..আর সম্ভাব্য এই বিপ্লবকে Twitter-এ নিয়ে যাওয়ার এখনি মোক্ষম সময় শুরু হয়েছে । এই বিপ্লবে অংশগ্রহনের আগ্রহীদের জন্য কিছু প্রাথমিক তথ্য লিপিবদ্ধ করছি এখানে। এটি খুব, খুব সহজ একটি মাধ্যম। কয়েক মিনিটের বেশি লাগবে না বুঝে নিতে। 

কিভাবে একাউন্ট খুলবেন ? ফেসবুক তো আছেই, টুইটার কেন? .. 

প্রথমে টুইটারের ওয়েবসাইট http://www.twitter.com যান তারপর সেখানে ফেসবুকের মতই একটি একাউন্ট খুলুন 

* ফেসবুকের সাথে টুইটারের একটি মৌলিক পাথর্ক্য হলো, টুইটার একটি সম্পূর্ণ উন্মুক্ত মাধ্যম। আপনার ফেসবুক পেজ আপনার ব্যক্তিগত সম্পত্তি, এবং আপনার অনুমতি ছাড়া কেউ এতে প্রবেশ করতে পারবে না। টুইটার ঠিক উলটা, এখানে সবাই উঠান পেতে বসে থাকে কোনো কুটুম্ব আসার অপেক্ষায়। 

কিন্তু লোকে কীভাবে জানবে আপনার বাড়ির/টুইটারের ঠিকানা? ... 

* পৃথিবীজুড়ে অনেক খোলা ময়দান থাকলেও আমরা শুধু আমাদের চেনা কিছু স্থানে যাই, সেখানে ঝুলিয়ে রাখা ব্যানার-ফেস্টূন সচরাচর দেখি। "Follow" করার ধারণাটি এভাবেই কাজ করে। আপনি টুইটারে যাকে "Follow" করবেন, শুধু তার নিজের বা তার সাথে জড়িত 'tweet' ক্রমাগত আপডেট হতে দেখতে পাবেন আপনার নীড়পাতায়। অন্য কেউও আপনার আপডেটগুলো তার নীড়পাতায় দেখতে পাবেন যদি তিনি আপনাকে "Follow" করেন। 

কিন্তু এমনিতেই দেখতে পেলে ফলো করা কেন? 

* টুইটারে একটি শক্তিশালী কমিউনিটি গড়ে উঠে পারষ্পরিক সহায়তার মাধ্যমে। অ্যাকাউন্ট খুলবার পর আপনি একলা পড়ে থাকবেন কোনো এক কোণে। আরও অনেকেই আপনার মতোই অবস্থায় থাকবে। সমমনা মানুষদের ফলো করুন, আশা রাখুন যে তারাও আপনাকে ফলো-ব্যাক করবে। এই ইকো-সিস্টেমটি গড়ে না তুললে আপনি তাতক্ষণিক সংবাদ জানতে পারবেন না। একদম মাঠ পর্যায়ে তরতাজা খবর সরাসরি পৌঁছে দিতে পারা টুইটারের বড় শক্তি। 

কিন্তু এই কমিউনিটির বাইরেও যে-কারও মনোযোগ আকর্ষণ করে কীভাবে বক্তব্য দেওয়া যায়? ... 

* আর সব জায়গার মতো টুইটারেও আপনার একটি ঠিকানা আছে। সেটি ব্যবহার করে কেউ আপনার প্রতি বার্তা পাঠাতে পারবে। যেমন, কেউ "@faruque1988 কী খবর?" লেখা মানে আমার দৃষ্টি আকর্ষণ করে আমাকে সরাসরি কিছু বলা। আপনি @BBCNews লিখে শুরু করার অর্থ হলো বিবিসি তার নীড়পাতায় আপনার এই টুইট দেখতে পাবে, অর্থাৎ তাদের মনোযোগ আকৃষ্ট হবে। এই "@" চিহ্নটি ব্যবহার না করলে আপনার টুইট নিজের পাতাতেই পড়ে থাকবে, আপনার ফলোয়ার ছাড়া কেউ খেয়ালও করবে না। 

কিন্তু এই ভাবে ছোটো ছোটো বালুকণা মিলে মহাদেশ গড়ে উঠে কীভাবে? ... 

আমরা সবাই দেখেছি মিশরে যে বিপ্লব হয়েছে সেটি টুইটারের ১৪০ ক্যারেক্টারের ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমেই হয়েছে। 

এই ক্ষুদে বার্তাগুলো একত্র হয়ে অনেক বড় মুভমেন্টের জন্ম দেয়। তবে আন্দোলনের জন্য কোথাও তো জড়ো হলেই হয় না, সব রকম কাজকে একই সুতায় গাঁথতে হয়। এই সুতা হলো হ্যাশট্যাগ ("#") .. এই ট্যাগটি নির্দেশ করে আপনি কী নিয়ে কথা বলছেন। সবাইকে অনুরোধ করা হচ্ছে নিজেদের টুইটে "#Paltansquare" ব্যবহার করতে। এর দুইটি সুফল আছে -- প্রথমত, কেউ paltan অথবা paltansquare লিখে সার্চ করলেই আপনার টুইট দেখতে পাবে। দ্বিতীয়ত, অনেক অনেক মানুষ paltansquare নিয়ে কথা বলতে থাকলে আমজনতা টুইটারে ঢুকলেই দেখতে পাবে যে পল্টন স্কয়ার নামে একটা বিষয় টুইটারে "trend" করবে । 

হ্যাশট্যাগ ("#" দিয়ে কিভাবে টুইট করবেন তার একটি নমুনা নিচে দেওয়া হলো .



ব্যাস, এই তো শিখে গেলেন টুইটিং। এবারে কিছু কৌশলগত কথা বলি। 

- শুরুতেই #paltansquare লিখে সার্চ করুন। ফলাফল হিসাবে অনেকের টুইট দেখতে পাবেন। এদের মধ্যে সমমনাদের ফলো করুন। তাহলে যেকোনো বার্তা এদের মাধ্যমে ভূত-থেকে-ভূতে পদ্ধতিতে আপনার কাছে পৌঁছে যাবে। 

- যে বা যারা প্রতিনিয়ত নতুন নতুন খবর টুইট করছেন তাদের ফলো করুন, একটিমাত্র ক্লিকে "Re-Tweet" করে সেই বার্তা পৌঁছে দিন আপনার নিজের নেটওয়ার্কে। 

- @ ব্যবহার করে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বরাবর পৌঁছে দিন আপনার বার্তা। যেমন বাংলাদেশে সরকারের দমন নিপীড়ন বিশ্ব মিডিয়াকে দেখাতে চাইলে ছবি বা আপনার টুইটারের লেখায় লিখবেন @CNN , @BBC @Aljazeera 

তাহলে আলজাজিরা বা বিবিসি আপনার টুইটটি দেখবে . 

পুলিশী নির্যাতন অথবা আপনার পছন্দের কোনো ছবি তুলুন, সেই ছবি টূইটারের অ্যাপলিকেশন ব্যবহার করে মাঠ থেকেই সরাসরি ওয়েবে প্রচার করে দিন। মুহূর্তে এটি পৌঁছে যাবে বিশ্ববাসীর কাছে। আপনার এই ক্ষুদ্র টুইট হয়ে যাবে আগামীর ইতিহাস। 

- অন্য যেকোনো মাধ্যমের মতো এখানেও অনেক বাকশালী ওত পেতে বসে আছে। তারা আপনাকে উত্তক্ত করলে তা উপেক্ষা করুন। কোথাও এদের কু-মতলব চলতে দেখলে জবাব দিন। 

বাংলাদেশে অবস্থানরত সবাইকে বলুন টুইটার ব্যবহার করতে, নিজ নিজ অভিজ্ঞতা সরাসরি জানাতে।Paltansquare এ টুইট করলে শুরুতে @ অথবা # ব্যবহার করতে ভুলবেন না। 

টুইটারে আরেকটি মজাদার বিষয় হলো আপনি টুইটারে যা লিখবেন তা সাথে সাথে আপনার ফেসবুকে চলে আসবে ..সেই জন্য আপনাকে একটি ছোট কাজ করতে হবে ..আপনার টুইটার একাউন্টের এডিট প্রোফাইল অপশনে যাবেন ..একদম নিচের দিকে পাবেন এই রকম একটি অপশন 



তারপর কানেক্ট টু ফেসবুকে ক্লিক করবেন ..ক্লিক করার পর নতুন ট্যাবে আপনার ফেসবুক লগইন করতে বলবে ...আপনি ফেসবুকে লগইন করার এই লেখাটি আসবে 

Twitter would also like permission to: 

Post on your behalf 

This app may post on your behalf, including status updates, photos and more. 

নিচে Allow অপশনে ক্লিক করলেই আপনার টুইটার একাউন্ট ফেসবুকে কানেক্ট হয়ে যাবে ...কানেক্ট হওয়ার পর এইরকম দেখা যাবে .. 



এবার আপনি টুইটারে যা লিখবেন তা ফেসবুকে চলে যাবে। 

দ্রুত টুইটারে যোগ দিন। #Paltansquare হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করুন বেশি বেশি করে। খুবই গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়ে আপনাদের সবার সহযোগিতা প্রয়োজন সামনের দিনগুলোতে ..