Saturday, 16 March 2013

লগি বৈঠা,বাসে আগুন দিয়ে মানুষ মারলে শঙ্কিত নয়,শুধু ঢাকা চলো কর্মসূচি নিয়ে উনার শঙ্কা

আজকে হাসিনা বিনতে বাকশাল বলেছেন, ‘বিরোধীদলীয় নেত্রীর কথায় ও কাজে মিল নেই। তিনি বলছেন, শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থান কর্মসূচি করবেন। কিন্তু তিনি যে কত অশান্তি করবেন, তা নিয়েই আমার চিন্তা। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নিয়ে আমি শঙ্কিত। .     উনি নাকি শংকিত , কিসের জন্য এই শঙ্কা ...নিজে খুনি তাই অন্যকে ও খুনি ভাবেন ? তাই হয়তো এই চিন্তা .. 
যখন ২০০৬ এ আম্লিক শেখ মুজিব এভিনিউ থেকে এসে জামায়াতের বায়তুল মোকারম উত্তর গেটের সমাবেশে হামলা করে ৬ টি তাজা প্রাণ সাপের মত পিটিয়ে হত্যা করলো , তখন কি তিনি শঙ্কিত হননা ..
তিনিই তো তখন বলেছিলেন , আগামী দিনের কর্মসূচি , লগি বৈঠা নিয়ে ঢাকার আসার কর্মসূচি
যার ফলাফল ছিলো ...ইতিহাসে জঘন্য 
.... 

আচ্ছা নাটোরের সানাউল্লাহ বাবুকে যখন খুন করা হলো তখন কি তিনি চিন্তিত থাকেন ?  


কই খালেদা তো কাউকে বলেন নাই কাচি নিয়ে আসতে , বা জামাযাতের কেউ বলেন নাই পাল্লার ডান্ডা বা ৫ কেজি ওজনের শীল নিয়ে আসতে ..... 
যদি বিরোধীদল থেকে এই হুমকি না থাকে , তাহলে সারাদেশে অঘোষিত কারফিউ দিয়ে আম্লিক নিজেদের পাতলা পায়খানা বন্দ্ব করতে চাচ্ছে কেন ? 

হাসিনা বিরোধী দলে থাকতে শুধু তত্বাবধায়কের জন্য ১৯২ দিন হরতাল দিয়েছিলো ..বিএনপি ৫ টা হরতাল না দিতেই এতো ভয় কেন ? গত বিএনপি সরকারের সময় হাসিনার নির্দেশে যুবলীগ শেরাটনের সামনে বাসে আগুন দিয়ে ১১ টি প্রাণ কেড়ে নিলো ? তখন কি তিনি শঙ্কিত ছিলেন ? 
শেখ সেলিমের শিকারক্তি ভিডিটি শুনলে এবং লজ্বা থাকলে বাংলাদেশে রাজনীতি করার নাম ও নিত না 



ঢাকা সহ সারাদেশে নিরীহ মানুষ গ্রেপ্তার হচ্ছে , এতে কি হাসিনার শঙ্কা হয় না ? নাকি হাসিনার শঙ্কা শুধু মানুষ রুপী কিছু কায়েনাদের পক্ষে ?   




যখন শেয়ারবাজারে সব হারিয়ে বিনিয়োগকারী আত্মহত্যা করে , তখন কি হাসিনার মনে কোনো শঙ্কা জাগে না ? নাকি এই শঙ্কা শুধু বিরোধীদলের গণতান্ত্রিক কার্যক্রমের উপর ....যদি ঢাকা তাহরীর স্কয়ার হয়ে হাসিনার গদি উলটপালট করে দেয় .সেই জন্য ?????