Saturday, 16 March 2013

আম্লীকের ভন্ডামি..নিজেদের প্রয়োজনে জামায়াতের গু খাইতে ও রাজি

আজকে দৈনিক আমারদেশের একটি খবরে দেখলাম .সাঈদীর ওয়াজের সিডি বিতরণ করছে আ. লীগ! খবরে বলা হয় জামায়াতে ইসলামীর সিনিয়র নায়েবে আমির মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে যুদ্ধাপরাধের কথিত অভিযোগে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করালেও ড. ইউনূসকে ঘায়েল করতে তার একটি ওয়াজের অডিও সিডি সারাদেশে বিতরণ করছে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। গ্রামীণ ব্যাংকসহ এনজিওগুলোর অতিমুনাফা এবং ক্ষুদ্র ঋণ গ্রহীতাদের প্রতি অমানবিক আচরণের সমালোচনা করে মাওলানা সাঈদীর একটি পুরনো বক্তব্যের ওই অডিও ক্যাসেট সিডি আকারে লাখ লাখ কপি আওয়ামী লীগ ও সরকারের একটি বিশেষ সংস্থা তাদের নিজস্ব চ্যানেলে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে দিয়েছে এবং দিচ্ছে। 

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের চায়ের দোকান, সেলুন, হাটবাজার ও পাড়া মহল্লায় এখন মাওলানা সাঈদীর ওই ক্যাসেট বাজানো হচ্ছে। আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের স্থানীয় নেতাকর্মীরা ওই সিডি ও ক্যাসেট সরবরাহ করে বাজাতে বলছে। আওয়ামী লীগ দলীয় হিসেবে পরিচিতদের প্রতিষ্ঠানে সাঈদীর ওয়াজ শুনে অনেকে বিস্মিত হচ্ছেন। খোঁজ-খবর নিলে জানা যাচ্ছে সরকারের অভিনব কৌশলের কথা। 


জামায়াতকে অনেকেই ধর্ম ব্যবসায়ী বলে , কিন্তু এখন এটা তো পরিস্কার কে সবচেয়ে বড় ধর্মব্যবসায়ী । কারা নিজেদের স্বার্থে তসবিহ আর পট্টি লাগায়। এই আম্লিক এরাই সাইদীর বিরুদ্বে কথা বলে , আবার ইউনুস ইস্যুতে জামায়াত তথা সাইদীকে ব্যবহার করে ... এরা গোলাম আজমের বিরোধিতা করে , কিন্তু নিজেদের প্রয়োজনে গোলাম আজমের পা ছুয়ে সালাম করে । এরা জামায়াতের সাথে এক টেবিলে বসে না । কিন্তু নিজেদের স্বার্থে তত্বাবধায়ক ইস্যুতে এক সাথে আন্দোলন করে , এরা জামায়াতিদের বিরুদ্বে জেহাদ করে কিন্তু নিজেরা ক্ষমতায় যেতে জামায়াতকে মন্ত্রিত্বের অফার করে । আর কয়দিন পর হয়তো আগামী নির্বাচনে সুবিধা আদায়ের জন্য জামায়াত নেতাদের ছেড়ে ও দিতে পারে ।