Friday, 27 December 2013

চট্টগ্রামে পুলিশকে দেখামাত্র গুলির নির্দেশ!


হরতাল-অবরোধের সময় ছাড়াও অন্য সময়ে পুলিশ সদস্যের ওপর আকস্মিক হামলা চালাচ্ছে দুর্বৃত্তরা। এর মধ্যে রাজধানী ও রাজশাহীতে দুজন পুলিশ কনস্টেবল বোমায় নিহত হয়েছেন। এ কারণে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ, সরকারি সম্পদ রক্ষা ও আত্মরক্ষার্থে এখন থেকে পুলিশকে নাশকতাকারীদের দেখামাত্রই গুলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন মাঠপর্যায়ের একাধিক পুলিশ সদস্য। গতকাল শুক্রবার বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে গেলে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা মন্তব্য করতে রাজি হননি।
চট্টগ্রাম কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আরিফুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এখন চায়নিজ রাইফেলে গুলি ভর্তি থাকে, ট্রিগারে থাকে আঙুল। নাশকতাকারীদের দেখামাত্রই গুলি করা হবে।’ তিনি বলেন, ‘ঢাকা ও রাজশাহীতে পুলিশের গাড়িতে আকস্মিক হামলা হয়েছে, সেখানে পুলিশ সদস্য মারা গেছেন। এটা পুলিশের ওপর সরাসরি হামলা এবং বোঝাই যাচ্ছে দুর্বৃত্তরা এখন পুলিশকে সরাসরি টার্গেট করেছে। এ কারণেই আইন অনুযায়ী আত্মরক্ষার্থে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা পাওয়া গেছে।’ পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ঢাকা ও রাজশাহীতে পুলিশবাহী গাড়িতে হামলা চালিয়ে দুর্বৃত্তরা বুঝিয়ে দিয়েছে এখন তাদের প্রধান টার্গেট পুলিশ। কিন্তু দু-একটি হামলা চালিয়ে পুলিশ বাহিনীর মনোবল ভাঙা সম্ভব হবে না। পুলিশ এখন থেকে আরো কঠোরভাবে সরকারি সম্পদ রক্ষা, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ এবং নিজেদের জীবন রক্ষা করবে। দুর্বৃত্তরা সশস্ত্র পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলা চালাবে, এটা পুলিশ নিশ্চয় চেয়ে চেয়ে দেখবে না।
নাশকতাকারীদের দেখামাত্র গুলির নির্দেশ বিষয়ে জানতে চাইলে ডবলমুরিং থানার ওসি মতিউল ইসলাম সরাসরি মন্তব্য করেননি। তিনি বলেন, ‘আইনেই বলা আছে, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ, সরকারি সম্পদ রক্ষা এবং আত্মরক্ষার্থে পুলিশ গুলি চালাতে পারবে।’
- See more at: http://www.kalerkantho.com/print-edition/first-page/2013/12/28/35500#sthash.WTL6enSu.dpuf