Wednesday, 22 May 2013

উদয়নে ছাত্রীদের হাতা কাটা শিক্ষকের স্বামী আওয়ামী মন্ত্রী রাজুর লুচ্চামীর নমুনা দেখুন




উনি হলেন আওয়ামী মন্ত্রী রাজিউদ্দিন রাজু 

যার স্ত্রী আজকে উদয়ন স্কুলে ছাত্রীদের ফুল হাতা জামার হাতা কেটে দিয়েছেন



উপরের ছবিতে রাজুর স্ত্রী কতৃক ছাত্রীদের জামার হাতা কাটার চিত্র 

আপনাদের মনে আছে নারী কিলার রসু খাঁর ইচ্ছা ছিলো ১০০ নারী হত্যা করা। তিরি ১১টা নারী হত্যা করেছিলো । তারপরে র‌্যাবের হাতে ধরা পড়ে চাদঁপুরের রসু খাঁ। কিন্তু বাংলাদেশে রসু খাঁর মত লোকদের অভাব নেই। রসু খাঁ নারী হত্যা করেছিলো । একজন চলে যায় আবার আরেকজন জন্ম নেয়।বরাবরের মত এবার আমাদের চোখের সামনে রসু খাঁ হয়েছে বাংলাদেশের আওয়ামী সরকারের মন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু। তিনি নারী হত্যা করে না। তিনি বেশ কয়েকজন নারীর ইজ্জত লুটে নিয়েছে। 

আওয়ামী আমলের প্রথম দিকের টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী ও বর্তমানে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু লুচ্চামি ও অনৈতিক কাজে সেঞ্চুরি মানিককে ও পিছনে ফেলে দিয়েছেন ..বুঝি না আওয়ামীলীগ মানেই কি লম্পট কিনা ? আজকে ও চট্রগ্রামে ছাত্রলীগের এক কর্মী এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি করতে গিয়ে জনতার ধোলাই খেয়েছে 

যাই হোক এখন আমরা দেখবো আওয়ামী মন্ত্রী রাজুর লুচ্চামি ও অনৈতিক কাজের সামান্য কিছু খতিয়ান 

১) রাজিউদ্দিন রাজু (বর্তমান মন্ত্রী) ২০০০ সালে যখন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন সে সময় তিনি রায়পুরার মরজাল ইউনিয়নের বাসিন্দা ফুটবলার সন্তোষ সাহার সুন্দরী স্ত্রীকে নিয়ে এক ঘরে একত্রে ছিলেন

২) তিনি নরসিংদীর রাঙামাটি এলাকায় সিরাজ ফকিরের বাড়ির উল্টোদিকে এক বাড়িতে প্রায়শই ফ্লাগ ছাড়া গাড়ি নিয়ে আসেন এবং সেখানে বেশ সময় অতিবাহিত করেন। সেখানে মণি (২৮) ও সুপ্তি (৩২) নামে দুই বোনের সঙ্গে তার কয়েক বছর ধরে অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে বলে জানা যায়। এমনও তথ্য লোকমুখে শোনা গেছে, মণিকে তিনি তিন মাসের গর্ভবতী অবস্থায় একটি ছেলের সঙ্গে বিয়ে দিয়েছিলেন

৩) নরসিংদীর ভেলানগরে আজিজ বিল্ডিংয়ের পাশে অবস্থিত বিটিএম ইংলিশ স্কুলের এক অনুষ্ঠান চলাকালে এক সুন্দরী উপস্থাপিকাকে পছন্দ করে স্টেজের বাইরে ডেকে পাঠান এবং তার সঙ্গে অনেকক্ষণ আলাপ করেন। মেয়েটির বয়স আনুমানিক ২৬-২৭, নাম জানা যায়নি। তাকে তিনি সার্কিট হাউসে দেখা করতে বলেন

৪) নরসিংদী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ২০০৯ সালের ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে তিনি ওই কলেজের রেজিস্ট্রার ইসরাত জাহানের সঙ্গে সংখ্য গড়ে তোলেন। তাকে সার্কিট হাউসে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানালে তিনি তা গ্রহণ করেন। তিনি প্রায়শই মন্ত্রীর সঙ্গে সার্কিক হাউসে দেখা করেন। জানা যায় তিনি এখন বিভিন্ন তদ্বিরের কাজ করেন এবং ঢাকায় সংসদ ভবনেও মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে থাকেন

৫) নরসিংদী গভর্নমেন্ট মহিলা কলেজের শিক্ষিকা তৈয়বাকে ([২৫] বাসা দাসপাড়া, পুরাতন জজকোর্টের পেছনে, কলেজের অনুষ্ঠানে পছন্দ হলে তাকে সার্কিট হাউসে দেখা করতে বলেন। তৈয়বাও মন্ত্রীর সঙ্গে মাঝে মাঝে দেখা করেন এবং বিভিন্ন তদ্বিরের কাজ করেন বলে জানা যায়

৬) ২০০৯ সালের জানুয়ারিতে উপজেলা নির্বাচনের আগের দিন তিনি রায়পুরা এসে নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করেন। তিনি তার পছন্দের প্রার্থীর জন্য এলাকায় আসেন। রাতে চলে যাওয়ার সময় তার গাড়িতে একজন সুন্দরী মেয়ে ওঠেন (নাম জানা যায়নি).. তাকে নিয়ে তিনি অন্য কোথাও সময় কাটান বলেন জানা যায়

৭) উপজেলা নির্বাচনে তিনি সার্কিট হাউসে সদর ইউএনও শারমিন জাহানের সঙ্গে অনৈতিক কাজের চেষ্টা করলে ইউএনও কোনো রকমে ছুটে বাথরুমে গিয়ে দরজা বন্ধ করে আত্মহত্যার হুমকি দেন। পরে সার্কিট হাউসের ভেতরেই বিষয়টি ফয়সালা হয় এবং শারমিন জাহান চলে যান। উল্লেখ্য, ইউএনও হওয়া সত্ত্বেও মন্ত্রীর নির্দেশে তাকে রায়পুরার বিভিন্ন সফরে মন্ত্রীর সঙ্গী হতে হতো।

৮) বর্তমানে নরসিংদীর ভারপ্রাপ্ত এনডিসি হিসেবে কর্মরত সুন্দরী বিসিএস ক্যাডার মহিলা রেনিসা রডরিক্সের সঙ্গে মন্ত্রীর খুব সখ্য গড়ে উঠেছে। জানা যায়, সার্কিট হাউসে এনডিসি মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে থাকেন এবং মন্ত্রীর সফরসঙ্গী হন। তাকে নিয়েও মুখরোচক আলোচনা শোনা যায়। অর্থাৎ মন্ত্রী সুন্দরী নারীদের প্রতি দুর্বল। তিনি প্রায়শই তাদের সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলেন এবং সুযোগ বুঝে অনৈতিক সম্পর্ক গড়েন

৯) তিনি নিয়মিত মদ্যপান করেন বলে জানা যায়। তা ছাড়া উপজেলা নির্বাচনের সময় নরসিংদীর বিভিন্ন উপজেলায় নিজ প্রার্থীদের জয়ী করার জন্য তিনি বেশ প্রভাব বিস্তার করেছিলে

১০) রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজুকে সব সময় নারীদের বিষয়ে সহায়তা করেন আওয়ামী লীগ নেতা হাজি সাত্তার, রাধানগর ইউপি চেয়ারম্যান সাদেক প্রমুখ। এখানে আরও উল্লেখ্য, নরসিংদীর স্কুল-কলেজের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে `আমরা সবাই রাজা আমাদের এই রাজার রাজত্বে`_ এই গানটি কিছুটা পরিবর্তন করে `আমরা সবাই রাজা আমাদেরই রাজুর রাজত্বে` হিসেবে শিল্পীদের গাইতে বাধ্য করা হয়, যা নিয়ে হাস্যরসের সৃষ্টি হয় 

১১) নরসিংদীর আওয়ামীলীগের জনপ্রিয় মেয়র লোকমান হত্যাকান্ডে রাজু ও তার ভাইয়ের হাত রয়েছে .রাজুর ছোট ভাই সালাউদ্দিন বাচ্চু লোকমান হত্যা মামলার ১ নং আসামী। 

আর এই মন্ত্রী কিন্তু আরেকজন মখা ..হেফাজতের আন্দোলন যখন তুঙ্গে তখন বলেছিলেন 

হেফাজত ঠেকানোর জন্য কারাতে ও তায়কোয়ান্ডো নারীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি বলেছেন, হেফাজতের ভয়ে ঘোমটা দিয়ে ঘরে বসে থাকলে নারী প্রগতি আসবে না। নারীদেরকে সমাজের নেতৃত্ব নিতে হবে এবং হেফাজত ঠেকাতে হবে। কারাতে ও তায়কোয়ান্ডো নারীরাই আগামীতে হেফাজত ঠেকাবে। হেফাজত ঠেকাতে পুলিশের প্রয়োজন হবে না




বরিশালের একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বলেছেন " বোরখা পরা থেকে বাঁচতে হলে ছেলে মেয়েদের নাচগান শিক্ষা দিন "...... এটা কিভাবে সম্ভব যে এটা বলার পরেও এই মন্ত্রী কিভাবে মন্ত্রিত্বে বহাল তবিয়তে আছেন?


দেখুন মন্ত্রী রাজু যদি বোরকা ও পর্দার ব্যাপারে এই রকম মন্তব্য করতে পারে তাহলে তার বউ কেন ছাত্রীদের জামার হাতা কাটতে পারবে না ..আবার যেই মহিলা এই আওয়ামী মন্ত্রী লেডি কিলার রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজুর মত লম্পটের সাথে ঘর সংসার করতে পারে পর্দা বা ইসলামের সাথে তার কি ধরনের অভিব্যক্তি থাকবে , অথবা নিজেই বা রাজুর থেকে কম পুরুষ কিলার না তা আপনারা নিজেরাই বুঝে নিতে পারেন ..আর আজকে ছাত্রীদের জামার হাতা কাটা নিয়ে কোনো মানবাধিকার কর্মী কিছু বলবে না ..মিজান ইতিমধ্যে কানা হয়ে গেছেন ..চুলটানা কামাল ও মিজানের পথ ধরেছে ..আর আম্লীগ বাম্লীগের মিডিয়া তারো আগে অন্ধ হয়ে গেছে 

পোস্ট রেফারেন্স :১) টেলিমন্ত্রী রাজিউদ্দিন রাজুর অনৈতিক কাজে তিন মাসের গর্ভবতী হয়ে পড়ে মণি 

২) কারাতে ও তায়কোয়ান্ডো নারীরাই হেফাজত ঠেকাতে পারবে পুলিশ লাগবে না : রাজিউদ্দিন রাজু 

৩) লোকমান হত্যাকাণ্ডে মন্ত্রী রাজুর সংশ্লিষ্টতা আছে: কামরুজ্জামান 

বিষয়: বিবিধ