Friday, 13 September 2013

মাদ্রাসার ছাত্র কমানোর আন্দোলন শুরু করে দিয়েছি: জয়

 পঁচাত্তরের পর দেশে স্কুল তৈরি বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ও তার তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

তিনি বলেন, ‘স্কুল বন্ধ করে দেয়ায় প্রতি তিনজন স্কুলছাত্রের বিপরীতে এখন একজন মাদ্রাসাছাত্র তৈরি হয়েছে। এটা কমিয়ে দিতে আমরা ইতোমধ্যে আন্দোলন শুরু করে দিয়েছি।’

শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘সুচিন্তা ফাউন্ডেশন’ নামের একটি সংগঠন আয়োজিত ‘রূপকল্প-২০২১: গত ৫ বছরের অর্জন এবং আগামী ৫ বছরের অঙ্গীকার’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে তিনি একথা বলেন।

জয় দাবি করে বলেন, ‘গত সাড়ে চার বছরে বাংলাদেশে যতো উন্নয়ন হয়েছে, স্বাধীনতার পর কোনো সরকারের আমলে এতো উন্নয়ন হয়নি। কেবল আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় ছিল বলেই বিদ্যুত সমস্যা সমাধান সম্ভব হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘সব সময় শোনা যায়- দুই নেত্রী, দুই নেত্রী। দুই দলই তো ক্ষমতায় এসেছে। তুলনা করে দেখুন- কে দেশকে এগিয়ে নিয়েছে, আর কে দেশকে পিছিয়ে দিয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা বলেন, ‘বিএনপির আমলে দেশের ১৬ জেলায় একযোগে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছিল। দেশকে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে জঙ্গিবাদী দেশ হিসেবে পরিচিতি দিয়েছিল। আমরা জঙ্গিবাদ দমন করেছি। এখন প্রায় প্রতি সপ্তাহেই আমরা জঙ্গি ধরছি।’

বর্তমান সরকারের আমলে ‘মারাত্মক উন্নতি’ হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, ‘গত সাড়ে চার বছরে মাথাপিছু আয় দ্বিগুণ হয়ে এক হাজার ডলার ছাড়িয়ে গেছে। মানুষের জীবন মান উন্নয়ন হয়েছে।’

দুর্নীতি দমনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের অর্জন তুলে ধরে জয় বলেন, ‘দুর্নীতিতে আমরা কোথায় ছিলাম, এখনো কোথায় এসেছি। বিএনপি সরকারের আমলে দেশ দুর্নীতিতে বাংলাদেশ শীর্ষ ছিল, এখন সে অবস্থান ৪৪তম। এটা মারাত্মক উন্নতি।